গাজার বালিতে আটকে পড়েছে ইসরাইলি বাহিনী : হামাস

বিশ্ব

গাজাভিত্তিক ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ আন্দোলন হামাসের সামরিক শাখা কাসসাম ব্রিগেডের মুখপাত্র আবু ওবায়দা এক বিবৃতিতে বলেছেন, ২০০ দিন ধরে গাজায় হামলা চালিয়ে মৃত্যু আর ধ্বংস ছাড়া ‘শত্রুরা আর কিছুই হাসিল’ করতে পারেনি। তিনি আরো বলেন, ইসরাইল এখনো ‘তার ভাবমূর্তি পুনরুদ্ধার আর পুনঃপ্রতিষ্ঠার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।’ গাজা যুদ্ধের ২০০ দিন উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার টেলিভিশনে প্রচারিত এক বিবৃতিতে তিনি এই মন্তব্য করেন।

আবু ওবায়দা ইসরাইল প্রসঙ্গে বলেন, ‘শত্রু গাজার বালিতে আটকে গেছে। লজ্জা আর পরাজয় ছাড়া তারা আর কিছুই অর্জন করতে পারবে না। ২০০ দিন চলছে। আর গাজায় আমাদের প্রতিরোধ ফিলিস্তিন পর্বতের মতোই অটল রয়ে গেছে।’

গত ৭ অক্টোবর ইসরাইলে হামাসের নজিরবিহীন হামলার মধ্যদিয়ে গাজা যুদ্ধের সূত্রপাত হওয়ার পর থেকে হিজবুল্লাহ ও ইসরাইলি সেনাবাহিনীর মধ্যে প্রায় প্রতিদিনই আন্তঃসীমান্ত গুলি বিনিময় হতে দেখা যায়।

এএফপি’র এক সাংবাদিক জানান, সীমান্ত থেকে প্রায় ৩৫ কিলোমিটার দূরে উপকূলীয় তায়ার নগরীর কাছে আবু আল-আসওয়াদ এলাকায় সর্বশেষ এ হামলার ঘটনা ঘটে।
সূত্রটি এএফপিকে জানায়, নিহত যোদ্ধা হিজবুল্লাহ’র বিমান প্রতিরক্ষা বাহিনীতে একজন প্রকৌশলী ছিলেন।

লেবাননের রাষ্ট্রায়ত্ত জাতীয় বার্তা সংস্থা জানায়, ইসরাইলি বাহিনী তার গাড়ি লক্ষ্য করে ড্রোন হামলা চালায়।

এএফপি’র এক সাংবাদিক জানান, ওই ড্রোন হামলায় গাড়িটি সম্পূর্ণভাবে পুড়ে যায়।
খবরে বলা হয়, হিজবুল্লাহ সাম্প্রতিক সময়ে ইসরাইলি লক্ষ্যবস্তুতে তাদের রকেট হামলা জোরদার করেছে। রোববার সন্ধ্যায় তারা ইসরাইলি একটি ড্রোনকে গুলি করে ভূপাতিত করে।
এএফপি’র পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ৭ অক্টোবর থেকে লেবাননে ইসরাইলি হামলায় কমপক্ষে ৩৭৭ জন নিহত হয়েছে। এদের বেশিরভাগই হিজবুল্লাহ যোদ্ধা। তবে নিহতদের মধ্যে ৭০ জন বেসামরিক নাগরিকও রয়েছে। এদিকে ইসরাইল বলছে, তাদের দেশের সীমান্তে হিজবুল্লাহ গ্রুপের বিভিন্ন হামলায় ইসরাইলের ১১ সেনাসদস্য ও আটজন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে।

সূত্র : আল জাজিরা এবং এএফপি

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *