ফিরলেন মোস্তাফিজ, জিতল চেন্নাই

খেলা

ফেরার অপেক্ষা দীর্ঘ করলেন না মোস্তাফিজ। প্রথম সুযোগেই ফিরেছেন ছন্দে। বল হাতে জোড়া উইকেট তুলে নিয়েছেন তিনি, ছিলেন বেশ কিপটে। সেই সাথে উঠে এসেছেন যৌথভাবে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারীর তালিকার শীর্ষে। একই দিনে বড় জয় পেয়েছে তার দল চেন্নাই সুপার কিংস।

রোববার ঘরের মাঠ এমএ চিদাম্বরাম স্টেডিয়ামে রোববার সানরাইজার্স হায়দরাবাদকে ৭৮ রানে হারায় চেন্নাই। প্রথমে ব্যাট করে ৩ উইকেটে ২১২ রানের বিশাল পুঁজি পায় হলুদ জার্সিধারীরা। জবাবে ৭ বল আগেই ১৩৪ রানে গুটিয়ে যায় প্যাট কামিন্সের দল। এই জয়ে পয়েন্ট টেবিলের তিনে উঠে এলো চেন্নাই।

এবারের আইপিএলে আক্রমণাত্মক ব্যাট করে মূর্তিমান আতঙ্কে রূপ নিয়েছেন ট্রাভিস হেড। ফলে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ ধরে রাখতে হলে তাকে দ্রুত ফেরানোর বিকল্প ছিল না চেন্নাইয়ের সামনে। সেই কাজটা বেশ ভালোভাবেই করেছেন তুষার দেশপান্ডে। পরপর দুই বলে তুলে নেন জোড়া উইকেট।

প্রথম ওভারেই ট্রাভিস হেড (১৩) ও আনমলপ্রীত সিংকে (০) ফিরিয়ে চেন্নাই শিবিরে স্বস্তি এনে দেন। আর নিজের দ্বিতীয় ওভারে বল করতে এসে অভিষেক শর্মাকেও আউট করেছেন তিনি। ৯ বলে ১৫ রান করেন অভিষেক। ফলে ৪০ রানেই ৩ উইকেট হারায় হায়দরাবাদ।

এরপর মার্করাম, ক্লাসেন এবং রেড্ডি চেষ্টা করেও দলকে বেশিদূর নিয়ে যেতে পারেনি। মাকরাম ও ক্লাসেন ফেরেন যথাক্রমে ৩২ ও ২০ রানে। বাকিদের মধ্যে কেউ ক্রিজে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। অধিনায়ক প্যাট কামিন্স ফেরেন ৭ বলে মাত্র ৫ রানে।
প্রথম দুই ওভারে উইকেট শূন্য থাকলেও নিজের তৃতীয় ওভারে এসে শাহবাজ আহমেদ ও জয়দেব উনাদকাটকে ফেরান মোস্তাফিজ। যা এবারে আইপিএলে তার ১৪তম উইকেট। তার সমান উইকেট রয়েছে বুমরাহর।

২.৫ ওভারে ১৯ রান দিয়ে নিয়েছেন ২ উইকেট। এছাড়াও পাথিরানাও পেয়েছেন দুইটি উইকেট। তবে দিনের সেরা বোলার তুষার দেশপাণ্ডে। ২৭ রানে ৪ উইকেট নিয়েছেন তিনি।

এর আগে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই আজিঙ্কা রাহানেকে হারায় চেন্নাই। তবে এরপর রুতুরাজ গায়কোড় ও ডেরিয়েল মিচেল মিলে গড়েন শতাধিক রানের জুটি। ১৩.৩ ওভারে মিচেল ফেরেন ৩২ বলে ৫২ রানে। ভাঙে ৬৪ বলে ১০৭ রানের জুট। তবে এরপর শিভাম দুবে যোগ দেন গায়কোড়ের সাথে।

এই জুটিতে আসে ৩৫ বলে ৭৪ রান। শতক ছুঁতে না পারার আক্ষেপ নিয়ে রুতুরাজ ফেরেন ৫৪ বলে ৯৮ রানে। ২০ বলে ৩৯ রান করে দুবে। ৩ উইকেটে ২১২ রান তোলে চেন্নাই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *