বাস উল্টে নিহত ৫: যাত্রীরা সর্তক করলেও গতি কমাননি চালক

সর্বশেষ

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাঁচজন নিহতের ঘটনায় বাসের বেপরোয়া গতিকেই দায়ী করছেন যাত্রীরা। তাঁরা বলছেন, কুমিল্লায় যাত্রা বিরতির আগে বেপরোয়া গতিতে চলছিল বাসটি। তখন যাত্রীরা শোর চিৎকার করে চালককে সর্তক করেন। যাত্রা বিরতির পর ফের চালক বেপরোয়া গতিতে বাস চালালে তা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাঁচজন নিহতের ঘটনায় বাসের বেপরোয়া গতিকেই দায়ী করছেন যাত্রীরা। তাঁরা বলছেন, কুমিল্লায় যাত্রা বিরতির আগে বেপরোয়া গতিতে চলছিল বাসটি। তখন যাত্রীরা শোর চিৎকার করে চালককে সর্তক করেন। যাত্রা বিরতির পর ফের চালক বেপরোয়া গতিতে বাস চালালে তা নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

এর আগে আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার বাতিসা ইউনিয়নের বসন্তপুর এলাকায় ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে যাত্রীবাহী বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে খাদে পড়ে যায়। এতে পাঁচ যাত্রী নিহত হন। আহত হন ১৪ জন।

চৌদ্দগ্রাম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক রবিউল হাসান বলেন, সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ১০ জনকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এদের মধ্যে আশঙ্কাজনক অবস্থায় চারজনকে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মিয়াবাজার হাইওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ এস এম লোকমান হোসাইন বলেন, দুর্ঘটনার পর বাসের চালক পলাতক রয়েছে। দুর্ঘটনাকবলিত বাসটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *