রাইসির স্মরণে নিরাপত্তা পরিষদে এক মিনিট নীরবতা, চটেছে ইসরায়েল

বিশ্ব সর্বশেষ

হেলিকপ্টার বিধ্বস্তে নিহত ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি ও তাঁর সফরসঙ্গীদের স্মরণে গতকাল সোমবার এক মিনিট নীরবতা পালন করেছে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা। এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে ইরানের চিরশত্রু ইসরায়েল।

হেলিকপ্টারটি গত রোববার দুপুরের দিকে ইরানের পূর্ব আজারবাইজান প্রদেশের পর্বতঘেরা ভারজাগান এলাকায় বিধ্বস্ত হয়। হেলিকপ্টারটিতে রাইসি, পররাষ্ট্রমন্ত্রী হোসেইন আমির আবদোল্লাহিয়ানসহ ৯ আরোহী ছিলেন। গতকাল সকালে হেলিকপ্টারটির ধ্বংসাবশেষের খোঁজ পাওয়া যায়। এরপর রাইসিসহ হেলিকপ্টারটির সব আরোহীর মৃত্যুর খবর নি

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে চলতি মে মাসের প্রেসিডেন্ট মোজাম্বিক। জাতিসংঘে নিযুক্ত মোজাম্বিকের রাষ্ট্রদূত পেদ্রো কমিসারিও আফনসো ইরানের প্রেসিডেন্ট রাইসিসহ তাঁর সফরসঙ্গীদের স্মরণে নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যদের দাঁড়িয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করতে বলেন। তাঁর আহ্বানে সাড়া দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রসহ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্যরা এক মিনিট নীরবতা পালন করেন।

এই ঘটনায় ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া জানান জাতিসংঘে নিযুক্ত ইসরায়েলের রাষ্ট্রদূত গিলাদ এরদান। তিনি এই পদক্ষেপকে লজ্জাজনক ঘটনা হিসেবে অভিহিত করেন।

এক্সে দেওয়া এক ভিডিও বার্তায় গিলাদ বলেন, ‘আপনারা ঠিকই দেখেছেন। জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ ইরানের গণহত্যাকারী প্রেসিডেন্ট রাইসির স্মরণে এক মিনিট নীরবতা পালন করেছে। কী লজ্জাজনক!

নিরাপত্তা পরিষদ বিশ্বশান্তি ও নিরাপত্তার জন্য হুমকি হয়ে উঠেছে বলেও মন্তব্য করেন ইসরায়েলি রাষ্ট্রদূত।

গত ৭ অক্টোবর ইসরায়েলে হামলা চালায় হামাস। এই ঘটনার পর থেকে গিলাদ ক্রমবর্ধমানভাবে জাতিসংঘের সমালোচনা করে আসছেন।

শ্চিত করে ইরান সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *