সমস্যা ছিল হাতের আঙুলে, ‘ভুলে’ অস্ত্রোপচার জিভে

বিশ্ব সর্বশেষ

আঙুলের সমস্যা হচ্ছিল বছর চারেকের এক শিশুর। তাকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা জানান অস্ত্রোপচার করাতে হবে। তবে সেই অস্ত্রোপচার খুবই ছোট ধরনের হবে। এ কথা শুনে শিশুর পরিবার অস্ত্রোপচার করাতে রাজি হয়।

কিন্তু অস্ত্রোপচারের পর পরিবারের মাথায় যেন আকাশ ভেঙে পড়ল।

 

ভারতীয় গণমাধ্যম আনন্দবাজার পত্রিকা বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, অস্ত্রোপচারের পর শিশুটিকে যখন তার পরিবার দেখতে যায়, তখন তারা দেখে হাতে কোনো অস্ত্রোপচারই হয়নি। বরং শিশুটির মুখে ব্যান্ডেজ করা। শিশুটিকে এ অবস্থায় দেখে ঘাবড়ে যায় তার স্বজনরা।কোথাও একটা গণ্ডগোল হয়েছে আঁচ করে শিশুটির বিষয়ে হাসপাতালেরই এক নার্সকে জিজ্ঞেস করেন তারা। শিশুর পরিবারের অভিযোগ, নার্সকে বিষয়টি বলতেই তিনি হেসে উড়িয়ে দেন।

 

শিশুটির পরিবারের আরো অভিযোগ, পরে তাদের আরো জানানো হয়, শিশুটির জিভেও একটি সমস্যা ছিল। তারই অস্ত্রোপচার করা হয়েছে।

এ কথা শুনে তাজ্জব হয়ে যান শিশুর মা-বাবা। তাদের দাবি, মেয়ের জিভে কোনো সমস্যাই ছিল না। এই প্রথম তারা সমস্যার কথা জানতে পারলেন। 

শিশুটির এক আত্মীয় বলেন, ‘আমরা যখন নার্সকে বিষয়টি জানাই, তিনি হেসে ফেলেন। তারপর আমাদের জানানো হয়, শিশুটির জিভেও সমস্যা ছিল।

সেটি ঠিক করে দেওয়া হয়েছে।’ 

বিষয়টি যখন হাসপাতালে জানাজানি হয়, চিকিৎসক এসে শিশুর পরিবারের কাছে ‘ভুলের’ জন্য ক্ষমা চান। পরে শিশুটির হাতের অস্ত্রোপচার করা হয়।

ভয়ানক এ ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের কেরালার কোঝিকোড় মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। জানা গেছে, শিশুটির হাতে ছয়টি আঙুল ছিল। সেটিরই অস্ত্রোপচার করাতে হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসতেই তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে স্বাস্থ্য দপ্তর।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *