হামলার পর কমেছে তেলের দাম

বাণিজ্য

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ইরান ইসরায়েলের ওপর হামলার পর বিশ্ববাজারে তেলের দাম বেড়ে যাবে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছিল। তবে বাস্তবে ঘটেছে ভিন্ন ঘটনা। ইসরায়েলে হামলার পর সামান্য হলেও কমেছে তেলের দাম।

সোমবার (১৫ এপ্রিল) ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

এদিন সকালে এশিয়ান ট্রেডে এই কম মূল্যের প্রবণতাই দেখা গেছে। তবে তা প্রতি ব্যারেল ৯০ ডলারের কাছাকাছিই ছিল। যদিও ইরান ইসরায়েলের ওপর আক্রমণ করার ঘোষণা দেওয়ার পর থেকেই তেলের দাম ওপর নেতিবাচক প্রভাব দেখা যাচ্ছিল।

এদিকে গত সপ্তাহে তেলে দাম ছিল সর্বোচ্চ। যা গত ছয় মাসের মধ্যেও ছিল সর্বোচ্চ। গত সপ্তাহের শেষের দিকে প্রতি ব্যারেল তেলের দাম ছিল ৯২ দশমিক ১৮ ডলার পর্যন্ত। গত বছরের অক্টোবরের পর থেকে হিসাব করলে তা ছিল সর্বোচ্চ। এরপর থেকে কমে তা ৯০ দশমিক ৪৫ ডলারে নেমে আসে। সোমবার সকালে সেটা আরও ২০ থেকে ৩০ সেন্ট কমে যায়।

তেল উৎপাদনের ক্ষেত্রে ওপেকভূক্ত দেশগুলোর মধ্যে ইরানের অবস্থান চতুর্থ এবং বিশ্বের মধ্যে সপ্তম। দেশটিতে প্রতিদিন ৩০ লাখ ব্যারেল অপরিশোধিত তেল উৎপাদন করা হয়।

ইসরায়েলে হামলার পর থেকে একটা পাল্টা আঘাতের আশঙ্কায় রয়েছে ইরান। ইসরায়েলের ওই আঘাত ইরানের তেলক্ষেত্রের ওপরও হতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এসব বিবেচনায় তেল সরবরাহের ক্ষেত্রে ইরান এখন আগের চেয়ে অনেক বেশি সতর্কতা অবলম্বন করবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গত ১ এপ্রিল সিরিয়ার রাজধানী দামেস্কে অবস্থিত ইরানি কনস্যুলেট ভবনে বিমান হামলা চালায় ইসরায়েল। এতে আইআরজিসির দুই শীর্ষ কর্মকর্তাসহ প্রাণ হারান ইরানের সাতজন সামরিক কর্মকর্তা। সেই হামলার জবাবে শনিবার (১৩ এপ্রিল) রাতে ইসরায়েলে ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালায় ইরান।

ইরানের ইসলামিক রেভল্যুশনারি গার্ড কোর (আইআরজিসি) জানিয়েছে, স্থানীয় সময় শনিবার ইসরায়েলের ভূখণ্ড লক্ষ্য করে কয়েক ডজন ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে। ‘ট্রু প্রোমিজ’ নামে অভিযানের আওতায় এসব ড্রোন ও ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছে। ইসরায়েলের অপরাধের শাস্তি দিতেই এমন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হয়েছে বলে আইআরজিসির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

আর ইসরায়েলের দাবি, ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র গুলো ইসরাইলের আকাশসীমায় পৌঁছানোর আগেই ভূপাতিত করা হয়েছে। শতাংশ হামলাই প্রতিহত করা হয়েছে। তবে ইরান বলছে,হামলায় ইসরায়েলের একটি গোয়েন্দা কেন্দ্র ও একটি বিমান ঘাঁটি ধ্বংস হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *